যৌন ক্ষমতা বাড়াবে যেসব খাবার - যৌন ক্ষমতা বাড়াতে করণীয়

প্রিয় ভিউয়াস আসসালামু আলাইকুম, আশা করি সকলেই ভাল আছেন। আজকের এই ব্লগটিতে আমরা যৌন ক্ষমতা বাড়াবে যেসব খাবার এবং যৌন ক্ষমতা বাড়াতে করণীয় সম্পর্কে আপনাদের সামনে একটি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য নিয়ে এসেছি। যৌন ক্ষমতা বাড়াবে যেসব খাবার তা সম্পর্কে আমাদের জানা খুবই জরুরী।

যৌন ক্ষমতা বাড়াবে যেসব খাবার

তাই আমরা আজকের এই আর্টিকেলটি যৌন ক্ষমতা বাড়াবে যেসব খাবার এবং যৌন ক্ষমতা বাড়াতে করণীয় সম্পর্কে আপনাদের সামনে বিস্তারিত ভাবে আলোচনা করব। তাহলে চলুন যৌন ক্ষমতা বাড়াবে যেসব খাবার এবং যৌন ক্ষমতা বাড়াতে করণীয় সম্পর্কে সঠিকভাবে জেনে নেওয়া যাক।

সূচিপত্রঃ যৌন ক্ষমতা বাড়াবে যেসব খাবার - যৌন ক্ষমতা বাড়াতে করণীয়

যৌন ক্ষমতা বাড়াবে যেসব খাবার 

সুস্বাস্থ্য সকলেরই কাম্য। সংসারের সুখ এবং মনে সুখ আনার জন্য অবশ্যই নারী-পুরুষ দাম্পত্যের জন্য যৌন ক্ষমতা থাক অবশ্যই জরুরী। যৌন ক্ষমতা না থাকলে কখনোই একটি সংসারে শান্তি বিরাজ করে না। অনেকের দম্পতি জীবনে এই যৌন ক্ষমতা হারানোর জন্য সংসারে ভাঙ্গনের সৃষ্টি হয়।

আরো পড়ুনঃ কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করার উপায় - পায়খানা হচ্ছে না কেন

তাই আমাদের অবশ্যই যৌন ক্ষমতা বাড়াতে যেসব খাবার প্রয়োজন সে সম্পর্কে জানা জরুরী। এবং যৌন ক্ষমতা বাড়াতে করণীয় সম্পর্কে সকল বিবাহ নারী-পুরুষদের সচেতন হতে হবে। আজকের এই ব্লকটিতে আমরা যৌন ক্ষমতা বাড়াবে যেসব খাবার তা সম্পর্কে আমরা আপনাদের জানাতে চলেছি।

  • মধু
  • বাদাম
  •  আপেল
  • মুরগির মাংস 
  • বিট
  • কফি 
  • রসুন
  • কলা 
  • দুধ 
  • ডিম

মধু - মধু একটি প্রাকৃতিক উপাদান কিন্তু এর মধ্যে রয়েছে বিশেষ কিছু পুষ্টিগুণ। যা হাজারো রোগ বালাই নিমিষে দূর করতে সক্ষম। তাই মধু নিয়ম করে খেলে আপনি আপনার যৌন ক্ষমতা ফিরে পাবেন। তাই মধু- নারী পুরুষ উভয়কেই যৌন শক্তি বাড়াতে প্রতি সপ্তাহে অন্তত ৩য়৪ দিন ১ গ্রাস গরম জলে ১ চামচ মধু মিশিয়ে খাওয়া উচিত।

বাদাম - কাঁচা বাদামে  রয়েছে জিঙ্কক । যা শুক্রাণুর পরিমাণ অধিক হারে বৃদ্ধি করতে পারে। তাই আপনার যৌন ক্ষমতা বাড়াতে খাদ্য তালিকায় বাদাম রাখুন।

আপেল - প্রতি দিন পুরুষদের একটি করে আপেল খাওয়া উচিত। এন্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ জননাঙ্গে রক্ত সরবরাহ বৃদ্ধি করে। যা আপেলের মধ্যে থেকে পাওয়া যায়। 

মুরগির মাংস - মুরগীর মাংস যৌন ক্ষমতা বাড়াতে চর্বি ছাড়া মাংস বিশেষভাবে কাজ করে থাকে। তাই আপনি মুরগির মাংস নিয়মিত খেতে পারেন।এতে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন থাকে। আর এই প্রোটিন আমাদের যৌন ক্ষমতা বাড়াতেও বিশেষভাবে কাজ করে থাকেন।

বিট - নারী পুরুষ উভয়ের জননাঙ্গের স্বাস্থ্যের উন্নতি করতে প্রতিদন খেতে পারেন। স্যালাডের সঙ্গে নিয়ম করে বিট খেলে, প্রচুর নাইট্রট শরীরে প্রবেশ করবে। যা আপনার যৌন ক্ষমতা  বৃদ্ধি পাবে।

কফি - অনেকে আছেন যারা কপি পছন্দ করেন না কিন্তু আপনি কি জানেন কফি আপনার যৌন ক্ষমতা বাড়াতে উৎসাহ প্রদান করে। কফি যৌন ইচ্ছার মুডকে তরাণ্বিত করে।

রসুন - নারী পুরুষউভয়েরই রসুন খাওয়া প্রয়োজনীয়। রসুন যৌন উদ্দীপনা বাড়াতে এবং জননাঙ্গকে পূর্ণ সক্রিয় রাখতে রসুনের পুষ্টিগুণের কার্যকারিতা সর্বজন স্বীকৃত। তাই নিয়ম করে প্রতিদিন খালি পেটে এক কোয়া করে রসুন খাবেন।

কলা - যৌনাঙ্গের শক্তি সঞ্চার করতে চান তাহলে পটাশিয়ামে ভরপুর পাকা কলা খেতে পারেন।এতের প্রচুর পরিমাণে রয়েছে পটাশিয়াম। যা যৌন মিলনে শক্তি যোগায়।

দুধ - যৌন ক্ষমতা বাড়াবে যেসব খাবার তার মধ্যে দুটো একটি বিশেষ গুণাবলী রয়েছে।যেসব খাবারে বেশু পরিমাণ প্রাণিজ- ফ্যাট আছে এমন প্রাকৃতিক খাদ্য আপনা যৌনজীবনের উন্নতি ঘটাবে। তাই যৌন মিলনের আগে এক গ্লাস দুধ খেয়ে নিন।

ডিম - ডিমে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন বি-৬ থাকে যা হরমোন লেভেলের ভারসাম্য রক্ষা করে এবং ক্লান্তি দূর করে। এবং যৌন ক্ষমতার আকাঙ্ক্ষা ও চাহিদা বৃদ্ধি করে।

হরমোনের ভারসাম্য রক্ষা রাখে যেসব খাবার

শরীরের স্বাভাবিক কাজকর্ম ঠিক রাখতে হরমোন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। অন্তঃক্ষরা গ্রন্থি থেকে যে রাসায়নিক বের হয়, তা রক্তের মাধ্যমে দেহের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গে নানা বার্তা পৌঁছে দেয়। তার ফলে আমাদের খিদে পায়, ঘুম হয়, ত্বক সুন্দর থাকে, মন ফুরফুরে থাকে। প্রজনন ক্ষমতা ঠিক থাকার পেছনেও রয়েছে হরমোনের প্রভাব।

এই হরমোনের ভারসাম্যহীনতায় মানসিক, শারীরিকসহ সব ধরনের অসুখ হতে পারে। তাই হর মনের ভারসাম্য রক্ষা ঠিক রাখা একান্ত জরুরী। আজকের এই ব্লগটিতে আমরা যৌন ক্ষমতা বাড়াবে যেসব খাবার এবং যৌন ক্ষমতা বাড়াতে করণীয় সম্পর্কে আপনাদের সামনে বিস্তারিত হবে।

সুস্থ দেহ সুস্থ মনের জন্য অবশ্যই আপনার হরমোনের ভারসাম্য রক্ষা জরুরি তাই হরমোন এর ভারসাম্য রক্ষার্থে যেসব খাবারগুলো খাওয়া জরুরি তার সম্পর্কে চলুন জেনে নেই।

প্রোটিন জাতীয় খাবার - হরমোনের ভারসাম্য বজায় রাখতে প্রোটিন জাতীয় খাবার খুবই জরুরী। মাংস, মাছ, ডিম, দুধ এগুলো হলো হাইপ্রোটিনের উৎস। প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় এসব হাই প্রোটিন যুক্ত খাবার রাখুন।

আরো পড়ুনঃ কিডনি রোগের লক্ষণ

ফল - ফলমূল হরমোনের ভারসাম্য রক্ষায় সাহায্য করে। তাই খাদ্যতালিকায় অবশ্যই রাখুন আপেল, স্ট্রবেরি, অ্যাভোকাডো, কলার মতো হাই ফাইবারযুক্ত ফল।

শাকসবজি - প্রতিদিনের খাবারে শাকসবজি থাকলে অনেক রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। গাজর, বীট, ব্রকোলি, পালংশাক, মিষ্টি আলু, টমেটোর মতো সবজি হরমোনের ভারসাম্য রক্ষা করতে সাহায্য করে।

ঘি বা বাটার - হরমোনের ভারসাম রক্ষার্থে আপনি ঘি বা বাটার ও খেতে পারেন এগুলোতে রয়েছে ভিটামিন এ, ডি, ই এবং কে-২, যা হরমোনের ব্যালেন্সে সাহায্য করে।

হার্বাল টি - চা আপনার মনকে যেমন ফুরফুরে করে তোলে তেমনি হরমোন ভারসাম্য রক্ষার্থেও বিশেষভাবে উপযোগী তাই আপনি নিয়মিত চা খেতে পারেন। আর সে চা টি হলো  হার্বাল টি।

যেকোনো বাদাম - বাদাম শরীরের হরমোন নিঃসরণ বাড়িয়ে ভারসাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করে। কাঠবাদাম, আমন্ড, আখরোট খুবই উপকারী।যে কোনো বাদামের মধ্যে থাকে লিনোলেইক অ্যাসিড ও স্বাস্থ্যকর চর্বি। হরমোনের মনের ব্যালেন্স ঠিক রাখে।

কোন খাবারগুলোতে যৌন ক্ষমতা কমে যায়

আজকের এই ব্লগটিতে আমরা জনসংখ্যা বাড়াবে যেসব খাবার সেসব খাবার সম্পর্কে ইতিমধ্যে জানতে পেরেছি কিন্তু এমন কিছু খাদ্য রয়েছে যে খাবারগুলো যৌন ক্ষমতা কমাতে সক্ষম। দাম্পত্য জীবন সুখের প্রতি যৌন ক্ষমতা থাকা অবশ্যই জরুরী তাই যেসব খাবার কোন খাবারগুলোতে যৌন ক্ষমতা কমে যায় সে সম্পর্কে জেনে সচেতন হওয়া জরুরী।

কারণ জনসংখ্যা কমে গেলে সংসারের অশান্তির সৃষ্টি হয় যা দুজনের বিচ্ছিন্ন মূল কারণ হতে পারে। দাম্পত্য জীবনের সুখের জন্য অবশ্যই আপনাদের কোন খাবারগুলোতে যৌন ক্ষমতা কমে যায় তা সম্পর্কে জানতে হবে।আপনার শারীরিক মিলনের ইচ্ছেটাকেই কমিয়ে দেয় এমন অনেক খাবার রয়েছে। তাই যৌন জীবনে সুখী থাকতে চাইলে খাবারের তালিকা থেকে এই খাবারগুলো বাদ দিন-

কর্নফ্লেক্স - জন হার্ভি কেলগ, যিনি বিশ্ববিখ্যাত কেলগ'স কর্নফ্লেক্স তৈরি করেছিলেন, তিনি আসলে পুরুষদের সেক্স ড্রাইভ কমানোর জন্য এটি তৈরি করেন? কর্নফ্লেক্সে থাকা চিনি আসলে টেস্টোস্টেরনের ক্ষরণ কমিয়ে দেয়। ফলে কমে আসে সেক্স ড্রাইভও।

অ্যালকোহল - অতিরিক্ত অ্যালকোহল সেবন আপনাকে মানসিক অবসাদের দিকে ঠেলে দেবে। পুরুষেরা বেশি অ্যালকোহলের নেশায় আক্রান্ত হলে, তাদের শরীরে টেস্টোস্টেরনের মাত্রাও উল্লেখযোগ্যভাবে কমে যায়। আর এই সবগুলোই সেক্সুয়াল ড্রাইভের জন্য মারাত্মক।

পুদিনা - পুদিনা শরীর ঠান্ডা করে আর ঠান্ডা এবং সেক্সের ক্ষমতা কমিয়ে দেয়। ছাড়া পুদিনার মেন্থল শরীরে টেস্টোস্টেরনের ক্ষরণও কমিয়ে  দিতে পারে।

কফি - কফির অসংখ্য উপকারিতা যেমন আছে, আছে অপকারিতাও। এটি আমাদের শরীরে অ্যাড্রিনাল গ্ল্যান্ডগুলিকে সক্রিয় করে নানা ধরনের স্ট্রেস হরমোনের ক্ষরণ বাড়ায়। এই ধরনের হরমোন আবার সেক্স হরমোন ও থাইরয়েডের ব্যালান্সে তারতম্য ঘটিয়ে যৌন ইচ্ছা একদমই কমিয়ে দেয়।

চিজ - বাজারে বিভিন্ন ধরনের চিজ বিক্রি হয়ে থাকে যেগুলোতেমেশানো হয় নানা ধরনের গ্রোথ হরমোন এবং অ্যান্টিবায়োটিক। তাই চিজ বেশি খেলে মেয়েদের শরীরে এক ধরনের হরমোনের ক্ষরণ বেড়ে যায়। এটি তাদের মধ্যে শারীরিক মিলনের ইচ্ছেকে মেরে ফেলে। এমনকী, নানা ধরনের সেক্সুয়াল ডিসফাংশনও হতে পারে। তাই এখন থেকে চিপস খেলে খুব সতর্কতার সাথে খাবেন।

সয়া - সয়াবিনের মধ্যে থাকা একটি উপাদান আমাদের শরীরে হরমোনাল ইমব্যালান্স তৈরির জন্য দায়ী। আপনি যদি অতিরিক্ত মাত্রায় এই খাবারটি খান, তাহলে আপনার যৌন ইচ্ছা কমে যাবে। যা নারী-পুরুষ ও উভয়ে  মধ্যেই দেখা যাবে।

আরো পড়ুনঃ কিভাবে তাড়াতাড়ি লম্বা হওয়া যায়

ক্যানড খাবার - আজকাল  কর্মব্যস্ত জীবন জাপনের জন্য ক্যানড খাবারের প্রতি নির্ভরশীল হয়ে পড়ছেন অনেকেই। এ ধরনের খাবারে সোডিয়ামের পরিমাণ বেশি ও পটাশিয়ামের পরিমাণ কম থাকে। এই কম্বিনেশন আপনার সেক্স অর্গ্যানে রক্তের সঞ্চালন কমিয়ে সেগুলোকে ঝিমিয়ে পড়তে বাধ্য করে। তাই ক্যানড খাবার যতটা সম্ভব এড়িয়ে চলা উচিত।

যৌন ক্ষমতা বাড়াবে যেসব খাবার - যৌন ক্ষমতা বাড়াতে করণীয়ঃ শেষ কথা

প্রিয় পাঠকগণ আজকের এই আর্টিকেলে আমরা যৌন ক্ষমতা বাড়াবে যেসব খাবার, যৌন ক্ষমতা বাড়াতে করণীয়, হরমোনের ভারসাম্য রক্ষা রাখে যেসব খাবার, কোন খাবারগুলোতে যৌন ক্ষমতা কমে যায়? যৌন ক্ষমতা বাড়ানোর স্থায়ী উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। আশা করি আপনারা উক্ত বিষয়গুলো সম্পর্কে জানতে পেরেছেন।

এতক্ষণ আমাদের সঙ্গে থাকার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ। এরকম গুরুত্বপূর্ণ আর্টিকেল আরো পড়তে নিয়মিত আমাদের ওয়েবসাইট ফলো করুন। কারণ আমাদের ওয়েবসাইটে নিয়মিত এ ধরনের আর্টিকেল প্রকাশ করা হয়।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

Skbd IT এর নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url