২৬ শে মার্চ কি দিবস

২৬ শে মার্চ কি দিবস এবং ২৬ শে মার্চ কেন পালন করা হয় এ বিষয়ে অনেকেই মনে প্রশ্ন থাকে, আজকের এই আর্টিকেলে আপনাদের জন্য আমরা ২৬শে মার্চ কি দিবস এ সম্পর্কে আলোচনা করব। ২৬ শে মার্চ বাঙালি জাতির জন্য একটি বিশেষ দিন। এই দিনটিতে বাংলার মানুষ অনেক গুরুত্বের সাথে পালন করে থাকেন।

২৬ শে মার্চ কি দিবস

আজকের এই আর্টিকারে আমরা ২৬ শে মার্চ কি দিবস এবং২৬ সে মার্চ কোন দিবস পালন করা হয় এর সাথে জড়িত নানা প্রশ্নের উত্তর আপনাদের সামনে শেয়ার করব। তাহলে চলুন আর দেরি না করে 26 শে মার্চ কি দিবস? ২৬ শে মার্চ কোন দিবস পালন করা হয় এই সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে জেনে নেই।

সূচিপত্রঃ ২৬ শে মার্চ কি দিবস

২৬ শে মার্চ কোন দিবস পালন করা হয়

২৬ সে মার্চ কোন দিবস পালন করা হয় এ বিষয়ে জানতে হলে আমাদের আর্টিকেলটির সঙ্গেই থাকুন আজকেরে আর্টিকেলে আমরা ২৬ শে মার্চ কি দিবস এবং ২৬ শে মার্চ কেন পালন করা হয় সে বিষয়ে আপনাদের সামনে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করব।

আরো পড়ুনঃ শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস কবে - শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস কেন পালিত হয়

২৬ শে মার্চ বাঙালি জাতিদের কাছে একটি বিশেষ দিন হিসেবে বিবেচিত এই দিনটিতে বাঙালি জাতি একটি তার বিশেষ অধিকারের স্বীকৃতি পায়। যা আমাদের প্রত্যেক বাঙালির জন্য একটি গর্ব। এই অধিকার ফিরিয়ে আনতে লাখো বাঙালির বুকের তাজা রক্ত বিলিয়ে দিতে হয়েছে। অনেক যুদ্ধ-বিগ্রহের পর অর্জিত হয়েছে 26 শে মার্চ।

এই ২৬ শে মার্চ কে ঘিরে বাঙালি জাতির যুগ যুগান্তরের দীর্ঘ প্রতীক্ষার সমাপ্তি হয়েছে।২৬ সে মার্চ এই দিনে স্বাধীনতা  দিবসের সূচনা হয়েছে।১৯৭১ সালের ২৬শে মার্চ স্বাধীনতার ঘোষণা দেন বঙ্গবন্ধু। ১৯৭১ সালের তাৎপর্যপূর্ণ এই দিনটিকে স্মরণ করে প্রতি বছর গভীর শ্রদ্ধা ও ভাবগম্ভীর্যের মাধ্যমে পালন করা হয় দিনটি।

২৬ শে মার্চ কি দিবস

বাংলাদেশে প্রতিবছর ২৬ শে মার্চ হিসেবে একটি দিবস পালিত হয়। কিন্তু বাংলাদেশের বেশির ভাগ মানুষ জানে না 26 শে মার্চ কি দিবস। ২৬ শে মার্চ কি দিবস জানতে হলে আজকের এই আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়তে থাকুন আজকের এই আর্টিকেলে আপনাদের জন্য আমরা ২৬ শে মার্চ কি দিবস এবং ২৬ শে মার্চ কেন পালন করা হয় এ বিষয়ে জড়িত বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর আপনাদের সামনে আলোচনা করব। চলুন তাহলে ২৬ শে মার্চ কি দিবসে বিষয়ে জেনে নিন।

1971 সালের 25 শে মার্চ পশ্চিম পাকিস্তানের সরকার গভীর রাতে পূর্ব পাকিস্তান  নিরীহ বাঙ্গালীদের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। ঐদিন ঢাকার বিভিন্ন স্থানে গোলাবর্ষণ থেকে শুরু করে নারীদের ওপর নির্যাতন করা হয় এবং অনেক স্থানে পরিকল্পিতভাবে হত্যাকাণ্ড চালাতে শুরু করে। পরবর্তীতে বাংলাদেশের মানুষ তাদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে তারা যুদ্ধের প্রস্তুতি ঘোষণা করেন। এবং নয় মাস রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের পর পূর্ব পাকিস্তান স্বাধীন বাংলাদেশ হিসেবে স্বীকৃতি পায়।

১৯৭২ সালের ২২ জানুয়ারি প্রকাশিত এক প্রজ্ঞাপনে এই দিনটিকে বাংলাদেশের জাতীয় দিবস হিসেবে উদযাপন করার ঘোষণা করা হয়। যা সরকারিভাবে ছুটি ঘোষণার দিন হিসেবে নির্ধারিত করা হয়। ২৬ মার্চ কে ঘিরে বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবস হিসেবে পতাকা উত্তোলন দেশাত্মবোধক গান এবং জাতীয় সংগীত গাওয়া রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বক্তৃতা বিনোদন ও সাংস্কৃতিক কর্মসূচির মাধ্যমে বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবস পালন করা হয়।তাই ২৬ শে মার্চ দিনটি বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবস হিসেবে পরিচিত।

২৬ শে মার্চ কোন দিবস

বাংলাদেশের বেশির ভাগ মানুষ জানে না 26 শে মার্চ কি দিবস। তাই বর্তমান প্রযুক্তির সাথে তাল মিলিয়ে অনেকে গুগলে অনুসন্ধান করে 26 শে মার্চ কি দিবস। আজকের এই আর্টিকেলে আমরা ২৬ শে মার্চ কি দিবস এবং ২৬ শে মার্চ কেন পালন করা হয় এ বিষয়ে আপনাদের সামনে তুলে ধরব ২৬শে মার্চ কোন দিবস চলুন তাহলে জেনে নিন।

২৬ শে মার্চ বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবস ও বাংলাদেশের জাতীয় দিবস। 

২৬ শে মার্চ স্বাধীনতা দিবস কেন

২৬ শে মার্চ স্বাধীনতা দিবস তা প্রায় সবাই জানে। কিন্তু স্বাধীনতা দিবস কেন বা এর পেছনের ইতিহাসটা কি? আমাদের মধ্যে অনেকেই সঠিকভাবে জানে না। আজকের এই আর্টিকেলে আমরা ২৬ শে মার্চ কি দিবস এবং ২৬ শে মার্চ স্বাধীনতা দিবস কেন সে বিষয়ে আপনাদের বিস্তারিত ভাবে জানাবো তাহলে চলুন আর দেরি না করে 26 শে মার্চ স্বাধীনতা দিবস কেন তা জেনে নিই।

আরো পড়ুনঃ ১৫ আগস্ট কে কে নিহত হয়েছিল - ১৫ আগস্ট কাদের হত্যা করা হয়

১৯৪৭ সালে জন্ম নেয় ভারত ও পাকিস্তান নামক দুটি রাষ্ট্র যার প্রধান ভিত্তি ছিল ধর্ম। কিন্তু ভারতের পশ্চিমে অবস্থিত পশ্চিম পাকিস্তান ও পূর্ব দিকের ভূখণ্ড তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের (বর্তমান বাংলাদেশ) মধ্যে শুরু থেকেই অনেকেই তফাৎ দেখা যাচ্ছিলো।

বিশেষ করে  পশ্চিম পাকিস্তান ভাষাসহ চাকরি ও বিভিন্ন ক্ষেত্রে পূর্ব পাকিস্তানের সাথে বৈষম্যের আচরণ করতে থাকে-এবং নানা সুযোগ-সুবিধা থেকে পূর্ব পাকিস্তানকে বঞ্চিত করতে থাকে। যার ফলশ্রুতিতে ১৯৭১ সালের মার্চ মাসে একটা অনিবার্য সংঘাতের দিকে মোড় নেয় পরিস্থিতি।

১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ তৎকালীন পশ্চিম পাকিস্তান সরকার গভীর রাতে পূর্ব পাকিস্তানের নিরীহ মানুষের উপর হামলা চালায়। এবং নিরীহ নারীদের ওপরও নির্মম ভাবে অত্যাচার চালায়। দীর্ঘ 9 মাস যুদ্ধের ফলে অর্জিত এই স্বাধীন বাংলা। হাজারো বাঙালির বুকের রক্ত ঢেলে দিয়েছে এই স্বাধীনতার জন্য। 

এই স্বাধীনতা পাওয়ার পর আমরা এই দিনটি এরপর থেকে স্বাধীনতা দিবস হিসেবে পালন করে থাকি। এই দিবসটি আমাদের মনে করে দেয় সেই সকল বাঙালির কথা যারা জীবন দিয়ে আমাদের দিয়ে গেছেন এই স্বাধীন বাংলা। তাদের আত্মত্যাগের কথা আমরা কোনদিন ভুলবো না তারা আমাদের কাছে চিরস্মরণীয় এবং বরণীয় হয়ে থাকবে।

২৬ শে মার্চ এর গুরুত্ব

২৬ শে মার্চ কি দিবস এবং ২৬ শে মার্চ কেন পালন করা হয় ইতিমধ্যে আমরা আজকের এই আর্টিকেলটি পড়ে জানতে পেরেছি 26 মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবস এই দিনের অনেক গুরুত্ব ও তাৎপর্য রয়েছে। ২৬ শে মার্চ এর গুরুত্ব সম্পর্কে চলুন তাহলে কিছু জেনে নেওয়া যাক।

১৯৭১ সালের ২৬ শে মার্চ বাংলাদেশের মানুষের কাছে একটি বিশেষ ও গুরুত্বপূর্ণ দিন হিসেবে পরিচিত। এই দিনটিতে বাঙালি জাতি তার স্বাধীন বাংলাকে ফিরে পায় নানা প্রতীক্ষার পর। বিভিন্ন বৈষম্যর শৃংখল থেকে মুক্তি তাই আমাদের এই পূর্ব বাংলা। লাখো শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত হয়েছে আমাদের এই স্বাধীন বাংলা। এই দিন বাঙালি জাতির জন্য অনেক গর্বের।

আরো পড়ুনঃ ১৬ই ডিসেম্বর কি - ১৬ই ডিসেম্বর কেন পালন করা হয়

আন্তর্জাতিক বিশ্বে বাংলাদেশের ইতিহাস ঐতিহ্য সক্ষমতা ইত্যাদি স্বাধীনতার মাধ্যমে প্রকাশ পায় এই ২৬ শে মার্চ দিনটি। আর সেই স্বাধীনতা দিবস হচ্ছে 26 শে মার্চ। যা আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জাতির গর্ব হিসেবে রয়ে যাবে আজীবন। আমাদের দেশের স্বাধীনতার জন্য যারা জীবন দিয়েছেন সেই সব লাখো শহীদদের জানাই সালাম।

২৬ শে মার্চ কি দিবসঃ শেষ কথা

আজকের এই আর্টিকেলে ২৬ শে মার্চ কি দিবস? ২৬ শে মার্চ এর গুরুত্ব, ২৬ শে মার্চ স্বাধীনতা দিবস কেন? ২৬ শে মার্চ কোন দিবস? ২৬ শে মার্চ কোন দিবস পালন করা হয়? সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। প্রিয় বন্ধুরা আশা করি আপনারা উক্ত বিষয়গুলো সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। এতক্ষণ আমাদের সঙ্গে থাকার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ। এরকম আর্টিকেল আরো পড়তে নিয়মিত আমাদের ওয়েবসাইট ফলো করুন।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

Skbd IT এর নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url