মহররম মাসের কয়টি রোজা করতে হয় - মহররম মাসের কয়টি রোজা

প্রিয় পাঠক আজকের এই পোস্টে আমরা মহররম মাসের কয়টি রোজা করতে হয় - মহররম মাসের কয়টি রোজা এ বিষয়ে সম্পর্কে আলোচনা করব। আমরা সকলেই জানি এখন চলছে পবিত্র মহররম মাস। মহরম মাসে ১০ তারিখ সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দিন। মহরম মাসের ১০ তারিখে পবিত্র আশুরা পালন করা হয়। এই উপলক্ষে মুসলমান জাতি আল্লাহর শুকরিয়া আদায় করে রোজা পালন করে। তাই আজকের পোস্ট এ আমরা মহররম মাসের কয়টি রোজা করতে হয় সে সম্পর্কে আলোচনা করব।

মহররম মাসের কয়টি রোজা করতে হয়

আপনি যদি মহররম মাসের কয়টি রোজা করতে হয় - মহররম মাসের কয়টি রোজা সে সম্পর্কে জানতে চান তাহলে সম্পুর্ন পোস্ট টি মনোযোগ সহকারে পড়ুন। তাহলে চলুন মহররম মাসের কয়টি রোজা করতে হয় - মহররম মাসের কয়টি রোজা তা জেনে আসি।

পেজ সূচিপত্রঃ মহররম মাসের কয়টি রোজা করতে হয় - মহররম মাসের কয়টি রোজা

আশুরার দিন কি করা উচিত?

আপনারা যারা এই পোস্টটি পড়েছেন তারা নিশ্চয়ই মহররম মাসের কয়টি রোজা করতে হয়? মহররম মাসের কয়টি রোজা এ বিষয়ে জানতে চান। তাই গুগলের সার্চ করে আমাদের এই পেজটি ওপেন করেছেন। তাহলে আপনি সঠিক জায়গায় এসেছেন। আজকের এই পোস্টে আমরা মহররম মাসের কয়টি রোজা করতে হয়? মহররম মাসের কয়টি রোজা সে সম্পর্কে বিস্তারিত জানব।

আরো পড়ুনঃ বিশ্বের বড় আলেমদের তালিকা

বাংলাদেশে ৯ আগস্ট রোজ মঙ্গলবার মহররম মাসের ১০ তারিখ হয়। তাহলে ৯ আগস্ট পবিত্র আশুরা পালন করা হবে। এটি একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ দিন। এই দিনে অনেক গুলো ঘটনা ঘটেছে। যা প্রত্যেকটি আল্লাহ তায়ালার কুদরত এবং দয়ার নমুনা। তাই এদিনটি মুসলমান জাতি অনেক গুরুত্বপূর্ণ মনে করে। আশুরার দিন আমাদের কি করা উচিত এই সম্পর্কে অনেকেই জানতে চাই।

  • এই দিনে আমরা বেশি বেশি আল্লাহর জিকির করতে পারি। 
  • আশুরার দিনে বেশি বেশি আল্লাহর কাছে মাফ চাইতে পারি। আল্লাহর কাছে বেশি বেশি তাওবা করতে পারি। কারন এই দিনে তাওবা কবুল হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। হযরত আদম (আঃ) এর তাওবা আল্লাহ তাআলা কবুল করেছিলেন। তাই আমাদের উচিত এই দিলে বেশি বেশি তাওবা করা।
  • আল্লাহ শুক্রিয়া করে রোজা রাখতে পারি।

মহররম মাসের কয়টি রোজা করতে হয়

আপনারা যারা এই পোস্ট টি পড়ছেন আপনারা মহররম মাসের কয়টি রোজা করতে হয় - মহররম মাসের কয়টি রোজা সে সম্পর্কে জানতে চান। অনেকে মহররম মাসে একটি রোজা পালন করে থাকে। কিন্তু এটা করা উচিত নয়। আমাদের মহা নবি হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) কয় টি রোজা করতে হবে তা শিখিয়ে দিয়েছে। সেই অনুযায়ী আমাদের রোজা পালন করতে হবে।

মহরম মাসের ১০ তারিখ ইহুদীরা রোজা করে থাকে। তারা হযরত মুসা (আঃ) ও বনি ইসরাইল লোহিত সাগর পার হয়ে যায় এবং ফেরাউনের লোহিত সাগরে ডুবে মরার কারণে শুকরিয়া যাপন করে একদিন রোজা পালন করে। কিন্তু আমাদের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) আমাদেরকে দুই দিন রোজা পালন করার নির্দেশ দিয়েছেন। কারণ আমাদের ইহুদীদের সাথে সাদৃশ্য করে কোন কাজ করা যাবে না। তাহলে আমরা তাদের সমর্থন করলাম বিষয়টা এভাবে দাড়াও।

তাই মহরম মাসের ১০ তারিখ তাদের মত করে রোজা পালন করা এবং ৯ তারিখ তাদের বিরোধিতা করে আরো একটি রোজা পালন করা মোট দুইটি রোজা পালন করা। আমাদের মহানবী (সাঃ) আমাদেরকে দুইটি রোজা পালন করার নির্দেশ দিয়েছেন।

মহররম মাসের কয়টি রোজা

হযরত আবু হুরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণিত আছে তিনি বলেন," রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন রমজানের পরে সবচেয়ে উত্তম রোজা হচ্ছে আল্লাহর মাস মুহাররম এর রোজা। আর ফরজ নামাজের পর সবচেয়ে উত্তম নামাজ হচ্ছে রাত্রিকালীন নামাজ" { সহীহ মুসলিমঃ ১১৬৩}

আরো পড়ুনঃ ডেবিট কার্ড একটিভ করার নিয়ম

আবদুল্লাহ ইবনে আব্বাস (রাঃ) বলেন, "আমি আল্লাহর রাসুল (সালালাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) রমজান ও আশুরা যেরূপ গুরুত্বের সঙ্গে রোজা রাখতে দেখেছি অন্য সময় তা দেখেনি"। { সহি বুখারীঃ ১/২১৮} মহররম মাস কে আল্লাহ তায়ালার মাস বলে এই মাসকে আরো বেশি সম্মানিত করা হয়েছে। এই মাসে নবীজির (সাঃ) অধিক রোজা রাখার ব্যাপারে উদ্বুদ্ধ করেছে।

আপনি চাইলে মহররম মাসের ৯, ১০ তারিখ রোজা রাখতে পারেন। আর যদি কোন সমস্যা থাকে তাহলে ১০, ১১ তার এইসব রাখতে পারেনা। কিন্তু আপনার দায়িত্ব হলো দুইটি রোজা করা।

শেষ কথাঃ মহররম মাসের কয়টি রোজা করতে হয় - মহররম মাসের কয়টি রোজা

আপনারা যারা এই পোস্টটি পড়ছেন মহররম মাসের কয়টি রোজা করতে হয় - মহররম মাসের কয়টি রোজা সে সম্পর্কে জানতে চাই। আপনাদের জন্য উপরে মহররম মাসের কয়টি রোজা করতে হয় - মহররম মাসের কয়টি রোজা এ বিষয়ে সম্পূর্ণ বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। সম্পূর্ন পোস্ট টি মনোযোগ সহকারে পড়ুন।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

Skbd IT এর নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url